মমিনুল মউজদীনের দশম মৃত্যুবার্ষিকী

সুনামগঞ্জ পৌরসভার তিনবারের নির্বাচিত পৌর চেয়ারম্যান প্রয়াত কবি মমিনুল মউজদীনের দশম মৃত্যুবার্ষিকী আজ ১৫ নভেম্বর।

২০০৭ সালের এইদিনে ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জ ফেরার পথে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান মমিনুল মউজদীন। একই ঘটনায় প্রাণ হারান তাঁর স্ত্রী তাহেরা চৌধুরী, ছেলে কাহলিল জিব্রান ও  গাড়িচালক কবির মিয়া। গুরুতর আহত হন মউজদীনের বড় ছেলে ফিদেল নাহিয়ান। দীর্ঘ চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হলেও আজও সেই ভয়াল দুর্ঘটনার স্মৃতি তাকে সন্ত্রস্ত করে তোলে।

 

পৌর চেয়ারম্যান মমিনুল মউজদীন ছিলেন মরমি কবি হাসন রাজার প্রপৌত্র। কবি হিসেবে পরিচিতি ছিল তার। কবিতা লিখতে শুরু করেন আশির দশকে। ঢাকায় পড়াশোনা শেষে সুনামগঞ্জ ফিরে ১৯৯৩ সালে প্রথমবার সুনামগঞ্জ পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। পূর্ণিমার সময় শহরের সব বাতি নিভিয়ে জোছনাবিলাস করতেন এই কবি। শহরের তরুণরাও আকৃষ্ট হয়েছিলেন জোছনার প্রতি। মউজদীনের এই উদ্যোগ তাঁকে আলাদা খ্যাতি এনে দেয়। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলন ও গণআন্দোলনে জড়িত থাকতেন।

 

কবি মমিনুল মউজদীনের দুটি কাব্যগ্রন্থ হলো, ‘এ শহর ছেড়ে পালাবো কোথায়’ ও ‘হৃদয় ভাঙ্গার শব্দ’।

 

সুনামগঞ্জে মমিনুল মউজদীন স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে মউজদীন পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন, স্মরণসভা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অন্যদিকে মমিনুল মউজদীনের নির্বাচিত কয়েকটি কবিতা নিয়ে সিলেটে ‘তুমিহীন, দিন…’ নামে একটি স্মরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে দর্পণ থিয়েটার।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *