সেরাকণ্ঠের চ্যাম্পিয়ন সুনামগঞ্জের ঐশী

ফিজআপ-চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ-২০১৭ আসরে যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন সুনামগঞ্জের মেয়ে হাওরকন্যাখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী রাকিবা ইসলাম ঐশী। রোববার সন্ধ্যায় চ্যানেল আইয়ের পর্দায় ও অনলাইন পোর্টালের স্ক্রলে এ ফলাফল জানানো হয়। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে চাওফ্রেয়া নদীরপাড়ে হোটেল চাত্রিয়ামে জমকালো গ্র্যান্ড ফিনাল অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে রোববার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা হয়। ঐশীর সঙ্গে ঢাকার মেয়ে সুমনাও যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন।

জানা গেছে, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা প্রতিভাবান সংগীতশিল্পীদের সবার সামনে নিয়ে আসতে প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করে আসছে চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ। ‘গানে আওয়াজ তোল প্রাণে’ স্লোগান নিয়ে-২০০৮ সালের ৪ এপ্রিল চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ যাত্রা শুরু করে। একে একে পার করেছে পাঁচটি আসর। রোববার ছিল সেরাকণ্ঠের ষষ্ঠ আসর। সেরাকণ্ঠে অংশ নেয়া প্রায় সব শিল্পীই সংগীতাঙ্গণে নিজেদের প্রতিষ্ঠা করেছেন।

এবার হাজার প্রতিযোগিকে পেছনে ফেলে সেরা দশের লড়াইয়ে ছিলেন সুনামগঞ্জের মেয়ে ঐশী। এছাড়া ছিলেন আদিবা, সুমনা, ফাতেমা, তারিক, তৃষা, অনিসা, তিন্নি, মৌমিতা, নান্নু, দোলা ও অপল।

প্রতিযোগিতার প্রথম থেকেই সুনামগঞ্জের মেয়ে ঐশী গান গেয়ে সাড়া ফেলেন সারাদেশে। তার গানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন এই আসরের বিচারকরাও। সেরাকণ্ঠে বিচারক হিসেবে ছিলেন নন্দিত গায়ক কুমার বিশ্বজিৎ, সামিনা চৌধুরী, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা ও মিতালী মুখার্জি।

দেশসেরা ঐশী সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট গ্রামের সরকারি কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম ও নারী নেত্রী আতিফা ইসলাম সাথীর মেয়ে। বর্তমানে তারা সুনামগঞ্জ পৌর শহরের বাসিন্দা। ঐশী বর্তমানে ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে সংগীত বিভাগে দ্বিতীয় বর্ষে পড়াশোনা করছেন।

শেয়ার করুন