ভারত থেকে এলো আরও ২০০ টন অক্সিজেন

বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দেশে পৌছেছে ভারতীয় রেলের আরও একটি ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’। শ্বাসকষ্টের রোগীদের সহায়তার জন্য ২০০ মেট্রিক টন তরল মেডিকেল অক্সিজেনের (এলএমও) দ্বিতীয় চালান নিয়ে একটি ট্রেন মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভারতের পেট্রাপোল হয়ে বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌঁছায়।

মঙ্গলবার ভারতের সময় সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে ১০টি কন্টেইনারে (প্রতিটিতে ২০ মেট্রিক টন) ২০০ মেট্রিক টন তরল মেডিক্যাল অক্সিজেন বহনকারী ট্রেনটি ভারতের টাটানগর থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। এই চালানটি বাংলাদেশের তরল মেডিক্যাল অক্সিজেনের মজুদ উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি করবে।

কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ট্রেনটি বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমে সিরাজগঞ্জের উদ্দেশে রওনা করবে। সেখানে অক্সিজেন নামিয়ে খালি ট্রেন আবারও ভারতে ফিরে যাবে।

জানা গেছে, করোনা রোগীর জন্য অতি প্রয়োজনীয় জীবন রক্ষাকারী তরল মেডিকেল অক্সিজেন (এলএমও) এর আমদানিকারক ‘লিন্ডে বাংলাদেশ’। রফতানিকারকও ‘লিন্ডে ইন্ডিয়া’। আর বেনাপোলের সিএন্ডএফ এজেন্ট মেসার্স সারথী এন্টারপ্রাইজ।

বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার সাইদুজ্জামান জানান, দ্বিতীয় চালানে ২০০ টন অক্সিজেন নিয়ে ভারতীয় রেলওয়ের ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ নামের বিশেষ ট্রেনটি রাত সাড়ে ১০টায় বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌঁছেছে। কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিশেষ ট্রেনটি বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমে সিরাজগজ্ঞের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

বেনাপোল কাস্টমস হাউজের সহকারী কমিশনার কল্যাণ মিত্র জানান, অক্সিজেনবাহী ভারতীয় ট্রেনটি বেনাপোল বন্দরের রেলওয়ে স্টেশনে প্রবেশের সাথে সাথে দ্রুততার সাথে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে খালাস দেয়া হবে। তার পর গন্তব্যে রওয়ানা দেবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে শনিবার (২৪ জুলাই) রাত ১০টার দিকে বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন এসে পৌঁছে ১০টি কনটেইনারে ২০০ মেট্রিক টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন (এলএমও) নিয়ে ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেসের প্রথম চালান।

সুনামগঞ্জমিরর/এসএ

x