পেরুর প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন পেদ্রো ক্যাস্তিলো

Pedro


পেরুর প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন বামপন্থি নেতা ও প্রাক্তন স্কুলশিক্ষক পেদ্রো ক্যাস্তিলো। স্থানীয় সময় বুধবার রাজধানীর লিমায় তার শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠান ও স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে তিন দিনব্যাপী নানা আয়োজন থাকছে লিমায়।

ভোটে তুমুল লড়াইয়ের কয়েক সপ্তাহ পর পেদ্রোকে জয়ী হিসেবে ঘোষণা দেয় ন্যাশনাল ইলেকশনস জুরি (জেএনই)। নতুন সরকার গঠন, করোনা নিয়ন্ত্রণ এবং দেশকে ঐক্যবদ্ধ করার মতো ইস্যুগুলো নিয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে নয়া প্রেসিডেন্টকে। ৫১ বছর বয়সি পেদ্রো একজন দরিদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের সন্তান। পেরুর গ্রামীণ দরিদ্র ভোটারদের সমর্থনেই তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন।

Peru's Castillo faces major challenges as presidency begins | Elections  News | Al Jazeera

অভিষেক ভাষণে পেদ্রো বলেন, ‘এই প্রথম এ দেশ (পেরু) একজন কৃষক দ্বারা পরিচালিত হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘পেরুতে এখনো ঔপনিবেশিক ক্ষত গভীরভাবে রয়ে গেছে। তিনি এই ক্ষত সারিয়ে তুলতে চান।’ গত ৬ জুন পেরুতে দ্বিতীয় দফার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ করেন পেদ্রোর নির্বাচনি প্রতিপক্ষ ডানপন্থি কিকো ফুজিমোরি। অবশেষে ভোট বিশ্লেষণ করে গত সোমবার রাতে ফলাফল ঘোষণা করে দেশটির ন্যাশনাল ইলেকশনস জুরি (জেএনই)। রাজনীতিতে পেদ্রো নতুন মুখ।

সুনামগঞ্জমিরর/এসএ

x