সুনামগঞ্জে ৪ হাজার মসজিদে হয় ঈদের জামাত

সুনামগঞ্জের ১১টি উপজেলার প্রায় ৪ হাজার মসজিদে ঈদ-উল-ফিতরের অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১৪ মে) সকাল ৮ টা থেকে সাড়ে ৯ টার মধ্যে জেলার ১১টি উপজেলার বিভিন্ন মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

সুনামগঞ্জ ইসলামি ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. আবু ছিদ্দিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে জানান, করোনা মহামারির কারণে এবার ঈদগাহে হয়নি ঈদের নামাজ। সরকারি নির্দেশনায় পাড়া-মহল্লার মসজিদে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলার ১১টি উপজেলার প্রায় ৪ হাজার মসজিদে ঈদের নামায় আদায় করে মুসল্লিরা, বলে জানান তিনি।

ঈদ উল ফিতরের প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে। এ মসজিদে তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৮টায়।

এ জামাতে ঈদের নামাজ আদায় করেন সুনামগঞ্জ-৪ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, কেন্দ্রীয় জামে মসজিদর কমিটির সাধারণ সম্পাদক নূরুর রব চৌধুরীসহ মুসল্লিগণ।

এদিকে, হাজীপাড়া জামে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করেন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি নূরুল হুদা মুকুট। আরপিননগর জামে মসজিদে নামাজ আদায় করেন সুনামগঞ্জ পৌর মেয়র নাদের বখত।

ঈদের নামাজ শেষে মোনাজাতে করোনা মহামারি থেকে বাংলাদেশসহ গোটা বিশ্বের সবাইকে হেফাজত ও মুক্তির জন্য আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ জানানো হয়। পাশাপাশি করোনায় আক্রান্ত ও মৃতদের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়েছে। একই সঙ্গে হিংসা-বিদ্বেষ, হানাহানি বন্ধ হয়ে বিশ্বে শান্তি স্থাপন, জীবনের পাপ মোচন ও রমজানের সিয়াম-সাধনা কবুলের প্রার্থনা জানিয়ে দোয়া-মোনাজাত করা হয়।

সুনামগঞ্জমিরর/এসএ

শেয়ার করুন