Skip to content

উপজেলা নির্বাচনে পিছিয়ে গেলো এসএসসি পরীক্ষা

১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া ৬ ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনের কারণে এসএসসির দুটি বিষয়ের পরীক্ষা এক মাস পিছিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব অলিউল্লাহ স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে নির্বাচনের কারণে এসএসসির দুটি বিষয়ের পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়ার কথা বলা হয়েছে।
পিছিয়ে দেয়া দুটি পরীক্ষা হলো ধর্ম ও হিসাব বিজ্ঞান। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি প্রথম দফা ভোটের আগের দিনের ধর্ম পরীক্ষা (ইসলাম, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্ট) এবং ভোটের পরের দিনের হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা এক মাস পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। পিছিয়ে দেয়া ধর্ম পরীক্ষা ১৮ মার্চ এবং হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা ২০ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানানো হয় চিঠিতে।

এর আগে নির্বাচন কমিশন প্রস্তাবিত ৬ ধাপে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠানে সম্মতি দেয় শিক্ষামন্ত্রণালয়। এতে করে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার বন্ধের দিনগুলোতে নির্বাচন হবে। শিক্ষার্থীদের সুবিধা ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এ সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন কমিশন থেকে দুই পরীক্ষার ছুটির দিনগুলোর মধ্যে ৬ ধাপে নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক করে শিক্ষামন্ত্রণালয়কে চিঠি দেয়া হয়। পরে শিক্ষামন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিয়ে কমিশনকে জানায়, এসব দিনগুলোতে নির্বাচন করা যেতে পারে।
নির্বাচন কমিশনের উপ-সচিব মিহির সারোয়ার মোর্শেদ বলেন, সোমবার শিক্ষামন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়ে ৬টি দিনের কথা জানাই। পরে তারা মিটিং করে সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাদেরকে জানিয়েছে, এই দিনগুলোতে নির্বাচন করাতে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই।

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন থেকে প্রস্তাবিত উপজেলা নির্বাচনের ৬টি ধাপ হলো- প্রথম ধাপ-১৯ ফেব্রুয়ারি, দ্বিতীয় ধাপ-২৭ ফেব্রুয়ারি, তৃতীয় ধাপ-১৫ মার্চ, ৪র্থ ধাপ-২৫ মার্চ, ৫ম ধাপ-৩১ মার্চ ও ৬ষ্ঠ ধাপ-৩ মে।

x