Skip to content

উপকূলে চলছে জলচর পাখি শুমারি

উপকূলের কয়েকটি চর এলাকায় জলচর পাখি গণনার কাজ শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব এবং প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশনের নয় সদস্যের একটি দল সোমবার ভোলা থেকে সপ্তাহব্যাপী আন্তর্জাতিক জলচর-পাখি গণনার এই কাজ শুরু করেছে।

দলের নেতা ইনাম-আল হক সংবাদিকদের জানান, ভোলা ছাড়াও লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী ও পটুয়াখালী জেলার উপকূলীয় পাখি-সমৃদ্ধ ২৫-৩০টি চরে সাত দিনব্যাপী গণনার কাজ চলবে।

বিশেষ করে বঙ্গোপসাগরের কুল ঘেঁষা ভোলা, মনপুরা, হাতিয়া, নিঝুম দ্বীপ, দমার চর, চর শাহজালাল ও ঢালচরসহ বেশকিছু চরের জলবিরল অংশে চলবে এ কার্যক্রম।

১৯৮৭ সাল হতে উৎসাহী পাখিপ্র্রেমী, পর্যবেক্ষক ও গবেষকদের স্বেচ্ছাশ্রমে বাংলাদেশের পাখি-সমৃদ্ধ জলাভূমিতে পাখি শুমারির কাজ পরিচালিত হয়ে আসছে।

বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন জলাশয়ের প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণের জন্য জানুয়ারি মাসের ২য় ও ৩য় সপ্তাহে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই জলচর পাখি গণনা করা হয় বলে জানান ইনাম আল হক।

দলটির সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছেন বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের সচিব ও এভারেস্ট বিজয়ী পর্বত আরোহী এমএ মুহিত।

দলের অন্যান্যের মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের সহ-সভাপতি মাজেদা হক, বার্ড রিঙ্গার সামিউল মোহসেনিন ও অনু তারেক।

x