Skip to content

সারাদেশে ক্রসফায়ারের নাটক হচ্ছে: বিএনপি

সারাদেশে ক্রসফায়ারের নাটক সাজিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বিচারবহির্ভূতভাবে হত্যা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের এক যৌথসভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই অভিযোগ করেন।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, ‘সারাদেশে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চলছে। সারাদেশে মধ্যম সারির নেতাকর্মীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তুলে নিয়ে পরে ক্রসফায়ারের নাটক সাজিয়ে হত্যা করা হচ্ছে। এটা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন, কোনো সভ্য সমাজ এটা বরদাশত করবে না।’ অবিলম্বে বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব অভিযোগ করেন, ‘গত সোমবার যৌথবাহিনী সাতক্ষীরার তালা উপেজলার এক ছাত্রদল নেতা আজহারুল ইসলামকে আটক করে। পুলিশ তাকে আদালত হাজির করেনি। আজ সকালে থানা থেকে এক কিলোমিটার দূরে তার লাশ পাওয়া গেছে। তার দেহে ৪টি গুলির চিহ্ন রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘শুধু সাতক্ষীরা নয় নীলফামারীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পুলিশের এজহারভূক্ত বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের আটক করার পর ক্রসফায়ারের নাটক সাজিয়ে বিচারবর্হিভূতভাবে হত্যা করা হচ্ছে। এভাবে গুপ্তহত্যা চলতে থাকলে দেশের কোনো মানুষেই নিরাপদ থাকবে না।’

বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমকেও সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

বিএনপির মুখপাত্র বলেন, ‘৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচন জনগণ নৈতিক এবং রাজনৈতিকভাবে সমর্থন দেয়নি। এই নির্বাচনের প্রথম সংসদ অধিবেশন বসবে ২৯ জানুয়ারি। এই অধিবেশন আহ্বানের প্রতিবাদে রাজধানীসহ সারাদেশে কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি পালিত হবে।’

রাজধানীর মিছিলটি করার জন্য ডিএমপির কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা পুলিশের কাছে দুইটি রুট চেয়েছি। একটি নয়াপল্টন থেকে কাকরাইল মালিবাগ মোড় ঘুরে মগবাজার গিয়ে শেষ হবে। অন্যটি সোহরাওয়ার্দী উদ্যান থেকে শুরু হয়ে মৎসভবন, পল্টন, বিজয়নগর, কাকরাইল, মালিবাগ ঘুরে মগবাজারে গিয়ে শেষ হবে। আমরা আশা করি পুলিশ গণতন্ত্রের ভিন্নমত প্রকাশের অধিকার সমুন্নত রাখতে সহযোগিতা করবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম-মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, মো. শাহজাহান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী আসাদ প্রমুখ।

x