২৮ লাখ মামলার জট খুলবেন আইনমন্ত্রী!

বিচার বিভাগের ‘ক্যান্সার’ হিসেবে পরিচিত মামলা জট থেকে বেরিয়ে আসতে নতুন সরকারের আইনমন্ত্রী আনিসুল হক নিয়েছেন বিশেষ উদ্যোগ। এর অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে দেশের ৬৪ জেলা থেকে তিনি তথ্য সংগ্রহ শুরু করেছেন।

এ লক্ষ্যে সব জেলার মামলার তথ্য সংগ্রহ করা হবে। কোন কোন জেলায় কি সমস্যা তা বের করে মামলা জট নিরসন করা হবে।

এর আগে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের গত সরকারের মন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ মামলা জট কমানোর নানা উদ্যোগের কথা শুনিয়েছেন। তবে কার্যত বাস্তবতা থেকে অনেক দূরে ছিল সেসব উদ্যোগ।

বিচার বিভাগে বর্তমানে প্রায় ২৮ লাখ মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সারা দেশের আদালতগুলোতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখের কাছাকাছি। এর মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১৪ হাজার ৪৯৪টি। হাইকোর্ট বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩ লাখ ১৬ হাজার ২১৮টি।

সব জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ সব ধরনের ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১৫ লাখ ৫২ হাজার ৯৮৯টি এবং সব ধরনের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৯ লাখ ৯ হাজার ৪৯১টি। সব মিলিয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সারা দেশে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ২৭ লাখ ৯৩ হাজার ১৯২টি।

এ বিশাল জট কিভাবে নিরসন করবেন এমন প্রশ্নের জবাবে নতুন সরকারের আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সারা দেশে মামলার সংখ্যা কেমন তার হিসাব নিচ্ছি। প্রতি জেলা ধরে ধরে এ হিসাব নিচ্ছি। এরপর যাচাই-বাছাই করা হবে কোন জেলায় কি পরিমাণ মামলা ঝুলে রয়েছে।

তিনি বলেন, মামলা জটের কারণ কি তা খুঁজে বের করা হবে। সমস্যা খুঁজে বের করে তার নিরসনের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

২০০৭ সালের ১ নভেম্বর নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগকে পৃথক করা হয়। বিচার বিভাগ পৃথকীকরণের পর ২০০৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সারা দেশের আদালতগুলোতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ছিল ১৯ লাখের ওপরে। ২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ওই সংখ্যা পৌঁছেছে ২৭ লাখ ৯৩ হাজার ১৯২ টিতে।

x