সরকারি কলেজে জলতরঙ্গের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হল অভ্যন্তরীণ বিতর্ক প্রতিযোগিতা

সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন জলতরঙ্গর উদ্যোগে সরকারি কলেজে অনুষ্ঠিত হল অভ্যন্তরীণ বিতর্ক প্রতিযোগিতা।

“কেবলমাত্র তরুণ নেতৃত্বই পারে দেশকে এগিয়ে নিতে” এই বিষয়কে সামনে রেখে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় কলেজের মিলনায়তনে বিতর্ক প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক পর্ব অন্তর্ভুক্ত ছিল।

জলতরঙ্গর সহসভাপতি শিশু-সংগঠক তাওসিফ মোনাওয়ারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মেজর ছয়ফুল কবীর চৌধুরী ও উপাধ্যক্ষ সৈয়দ মহিবুল ইসলাম।

অধ্যক্ষ প্রফেসর মেজর ছয়ফুল কবীর চৌধুরী বলেন, বিতর্ক লেখাপড়ারই অংশ। বিতর্কে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটে। আগামীর কর্ণধার গড়ে তুলবে বিতর্ক। সুষ্ঠু ও যুক্তিনির্ভর সমাজ গঠনে বিতর্কচর্চার কোনো বিকল্প নেই। বিতর্কচর্চায় আÍবিশ্বাস বাড়ে।

উপাধ্যক্ষ সৈয়দ মহিবুল ইসলাম বলেন, যুক্তি দিয়ে কোনো কথা উপস্থাপন করলে তা মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়। তাই যুক্তিনির্ভর শুভ বিবেকস¤পন্ন প্রজন্ম গড়ে তুলতে বিতর্কচর্চা বাড়াতে হবে।

বিতর্ক প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে দুটি দল অংশ নেয়। এরা হল, চরকাকাটা ও সূর্যতরুণ। দুটি দলই কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা গঠন করে।

চরকাটার পক্ষে অংশ নেয় ফারজিয়া হক ফারিন, ইরতিজা কাগজী ও নাহিদা সুলতানা সানি। সূর্যতরুণের পক্ষে অংশ নেয় মোঃ তাহের মিয়া, সাইজিদ মিয়া ও মোশাররফ হোসেন। মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন কলেজের সহকারি অধ্যাপক মোঃ আব্দুর রকিব তারেক। বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন সহকারি অধ্যাপক ইভা রায়, প্রভাষক আনসার শহীদ আনসারী ও প্রভাষক মাজহারুল ইসলাম।
প্রতিযোগিতায় চরকাকাটা বিজয়ী হয়।

প্রতিযোগিতার পর সাদিয়া আলম মীরা ও বুশরা জান্নাতের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে গান পরিবেশন করেন কলেজের শিক্ষার্থী সনি চন্দ, রাকিবা ইসলাম ঐশী প্রমুখ।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ প্রতিযোগিদের মধ্যে ক্রেস্ট ও সনদপত্র বিতরণ করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮জানুয়ারী কলেজে বিতর্ক প্রতিযোগিতাটির বাছাই পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

x