প্রিয় মানুষটি যখন অন্য কাউকে ভালোবাসে

মানুষ যাকে ভালোবাসে, জীবনে কি তাকেই পায়? কেউ পায়, কেউবা পায় না। মাঝে মাঝে প্রিয় মানুষটিও দূরে সরে যায় ছোট ছোট ভুলের কারণে। আবার কখনো দেখা যায় যাকে মানুষ পছন্দ করে তার সাথে হয়তো কোনো কারণে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে ওঠে না। তাই বলে কি প্রিয় মানুষটি অপ্রিয় হয়ে যায়? মোটেও না! পছন্দের মানুষটি যখন আপনাকে ভালো না বেসে জড়িয়ে পড়ে অন্য কারো সাথে ভালোবাসার সম্পর্কে, তখন অন্তরে দহন হওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কী করবেন তখন? নিজেকেই বা স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনবেন কীভাবে?

ভুলে থাকার চেষ্টা করুন :
আমরা যতই চেষ্টা করি না কেন, একটা মানুষকে নিমিষেই ভুলে যাওয়া সম্ভব নয়। তাই বলে বারবার তার কথা মনে করবেন না। বরং নিজের ভালো লাগার কাজগুলোতে ডুবে গিয়ে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন। বন্ধুবান্ধব ও অন্যান্যদের সাথে বাড়িয়ে তুলুন, সময় কাটান তাদের সাথে।

ভুলেও বন্ধু হবার কথা ভাববেন না :
অনেক সময় আমরা ভাবি, প্রেম নেই তো কী হয়েছে, অন্তত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাক! এটি একটি চরম ভুল সিদ্ধান্ত। এতে শুধু আপনার মন খারাপ হবে বারবার। আপনি ভুগতে থাকবেন হীনমন্যতায়। আর বন্ধুত্বের সম্পর্কটি আপনাকে মনে করিয়ে দেবে আপনার ব্যর্থতার কথা। এতে ক্ষতি আপনারই।

মানুষটির সাথে দেখা করার চেষ্টা করবেন না :
আপনি একজনকে পছন্দ করেন অথচ তিনি ভালোবাসেন অন্য আরেকজনকে, এমন অবস্থায় মানুষটির সাথে দেখা না করাই ভালো। বারবার দেখা করতে চাইলে আপনি তার চোখে উপহাসের পাত্র হয়ে যাবেন। তার তাচ্ছিল্য আপনাকে নিজের কাছেই ছোট করে তুলবে।

মানুষটির নামে আজেবাজে কথা বলবেন না :
আপনি প্রেমে ব্যর্থ হয়েছেন বলে বা মানুষটি আপনাকে ভালোবাসে না বলে তার নামে অন্যদের কাছে আজেবাজে কথা বলবেন না। এটা ছোট মনের পরিচায়ক। আপনি তাকে পছন্দ করেন বলেই যে সেও আপনাকে পছন্দ করবে, এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। তাই মানুষটি সম্পর্কে কুত্‍সা রটাবেন না।

বর্তমান সম্পর্ক ভাঙার চেষ্টা করবেন না :
আপনার প্রিয় মানুষটি অন্য কাউকে ভালোবাসে, ব্যাপারটি আপনার পছন্দ না হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই বলে তার বর্তমান সম্পর্কটি ভাঙার চেষ্টা করবেন না। এতে আপনার কোনো লাভই নেই। বরং আপনি মানুষটির চোখে অপরাধী হয়ে যাবেন। আর মনে রাখবেন, জোর করে কারো মনের মানুষ হওয়া যায় না।

x