Skip to content

ভিডিও-বার্তার উৎস শনাক্ত

আল-কায়েদা প্রধান আয়মান আল জাওয়াহিরির নামে প্রচার করা ভিডিও বার্তার উৎস জানা গেছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা উপদেষ্টা তারিক আহমেদ সিদ্দিকী।

তিনি সোমবার চট্টগ্রামে নৌবাহিনীর বার্ষিক সমুদ্র মহড়া ‘এক্সারসাইজ সি থান্ডার-২০১৪’ শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘তবে কে বা কারা এটি প্রচার করেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ বিষয়ে জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। কোথায় থেকে হুমকি দেওয়া হয়েছে তা শনাক্ত করা গেলেও তদন্তের স্বার্থে বলা যাচ্ছে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘২০০৯ সাল থেকেই আমাদের দেশ নিয়ে হুমকি রয়েছে। আমরা এতে বিচলিত নই। আমাদের দেশের কেউ এর সঙ্গে জড়িত কিনা সেটা তদন্ত করা হচ্ছে।’

দীর্ঘ ১৬ দিনব্যাপী আয়োজিত মহড়ায় প্রত্যক্ষভাবে অংশ নেয় নৌবাহিনীতে সদ্য সংযোজিত সর্ববৃহৎ যুদ্ধ জাহাজ সমুদ্র জয়, ফ্রিগেট, টর্ভেট, ওপিভি, মাইন সুইপার, পেট্রোল বোট, গান বোট, টর্পেডো বোটসহ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জাহাজ। পাশাপাশি নৌবাহিনীর মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্রাফটও অংশ নেয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নৌবাহিনী প্রধান ভাইস এডমিরাল মুহাম্মাদ ফরিদ হাবিব।

এদিকে, ভিডিও-বার্তাটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ইন্টারনেটে ছাড়া হয়েছে বলে ধারণা করছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি। সংস্থাটি এ কথা জানিয়েছে।

বিটিআরসির সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) জাকির হোসাইন খান জানান, তারা জিহাদোলোজি ডটকম (jihadology.com) নামের সাইটটি বাংলাদেশে বন্ধ করে দিয়েছেন।

এই সাইট থেকে প্রকাশ করা ভিডিও-বার্তায় বাংলাদেশের মুসলমানদের প্রতি ইসলামের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণাকারীদের প্রতিরোধের আহ্বান জানানো হয়।

x