Skip to content

তাহিরপুরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ বন্ধ

তাহিরপুরে উপজেলা প্রশাসনের তৎপরতায় বাল্যবিবাহ বন্ধ হল। বুধবার উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১০ বছর বয়সী পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রী একই এলাকার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের ১৩ বছর বয়সী এক ছেলেকে বিয়ে করতে চায়। এজন্য বাড়ি থেকে পালিয়ে পার্শ্ববর্তী সুলেমানপুর গ্রামে ছেলেটির বোনের বাড়িতে তারা আশ্রয় নেয়। সকালে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি শুনে স্থানীয় দুই গ্রামের ইউপি সদস্য ও এলাকাবাসী ওই মেয়েটিকে তাঁর বাবার বাড়িতে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। পরে এলাকাবাসী গতকাল দুপুরে ইউএনও’র কাছে এ বিষয়টি জানান। ইউএনও ঘটনা শুনে পুলিশ নিয়ে মহালিয়া হাওরপাড়ে অবস্থিত ওই ছেলেটির বাড়িতে উপস্থিত হন। এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে ছাত্রীর বাবার কাছে ফিরিয়ে দেন। এ সময় ওই ছেলেটিকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। ইউএনও উপস্থিত এলাকাবাসী, দুই পরিবারের লোকজন ও ওই ছাত্রীর সামনে বাল্যবিবাহের কুফল এবং বাল্যবিবাহের আইনগত শাস্তির বিষয়টি ব্যাখা করেন।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য হাবিবুল ইসলাম বলেন, ১০/১২ বছর বয়সী ছেলে-মেয়ে আবেগের বশবর্তী হয়ে ঘর ছেড়ে বিয়ের পরিকল্পনা প্রশাসনের কারণে সফল হতে পারেনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সোলায়মান বলেন, একেবারে কমবয়সী ছেলে মেয়ে আবেগের বশবর্তী হয়ে পালিয়ে বিয়ে করতে চেয়েছিল। স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগীয়তায় আমরা মেয়েটিকে তাঁর বাবার বাড়িতে ফিরিয়ে দিয়েছি।

x