Skip to content

যে কোন মূল্যে স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখা হবে : প্রধানমন্ত্রী

যে কোন মূল্যে স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা যখন ৯৬ সালে ২১ বছর পর ক্ষমতায় আসি তখন অবাক হয়ে দেখি আমাদের আর গর্ব করার মত কিছু নেই, একাত্তরের পরাজিত শক্তি আমাদের স্বাধীনতা, সংস্কৃতির ইতিহাস মুছে দিয়েছে। আমরা ক্ষমতায় এসে আমাদের সুদীর্ঘ ইতিহাস সমৃদ্ধ করি এবং যে কোন মূল্যে আমরা আমাদের স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাঙালি জাতি সবসময়ই বঞ্চিতের শিকার, লড়াই করে অধিকার আদায় করতে হয়েছে বাঙালি জাতিকে। একমাত্র বাঙালি জাতিই পারে ভাষার জন্য রক্ত দিতে। পৃথিবীতে খুব কম দেশই আছে যারা ভাষার জন্য লড়াই করেছে।

২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস করার বিষয়ে বলেন, এক রফিক ভাষার জন্য জীবন দিয়েছেন আর এক রফিক ভাষা দিবসকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য লড়াই করে গেছেন। এ সময় তিনি মরহুম রফিকুল ইসলামের রুহের মাগফেরাত ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর অবদান বিষয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৪৮ সালে ৪ ফেব্রুয়ারি এফ এস হলে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ গঠন করে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে ফরিদপুরে পাঠানো হলেও তিনি চিকিতসার জন্য ঢাকায় আসার যে সুযোগ পেতেন সেই সুযোগটাকে কাজে লাগিয়ে ভাষা সংগ্রাম পরিষদের জন্য কাজ করতেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এসেই ২১ ফেব্রুয়ারিকে সর্বপ্রথম রাষ্ট্রিয়ভাবে শহীদ দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। আমরা এখন আবার ক্ষমতায় আমারা জঙ্গীবাদ, মানি লান্ডারিং সহ বিভিন্ন অপবাদে যে কালোতালিকাভুক্ত হয়েছিলাম তা থেকে বেরিয়ে এসেছি। আমরা ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলবো।

x