Skip to content

সিলেটের চার উপজেলায় ‘ভোটের নিরাপত্তায়’ মাঠে সেনাবাহিনী

দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ঘিরে সিলেট বিভাগের চার উপজেলায় স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে আজ মঙ্গলবার মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী। সঙ্গে থাকছেন পর্যাপ্তসংখ্যক র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্য।

এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেটের জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম।

তিনি জানান, সিলেট বিভাগের বালাগঞ্জ, সুনামগঞ্জ সদর, দিরাই ও হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় ২৭ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহণে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আজ মঙ্গলবার মধ্যরাতেই শেষ হয়ে যাচ্ছে মিছিল-মিটিংসহ সব ধরনের নির্বাচনী প্রচারণা।

একই সঙ্গে একই সময়ে সংশ্লিষ্ট উপজেলায় সব ধরনের যান্ত্রিক যানচলাচলও বন্ধ হয়ে যাবে। ভোটগ্রহণ উপলক্ষে এসব উপজেলায় নির্বাচন কমিশন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে বলেও জানান তিনি ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, প্রথম ধাপের মতো এবারও প্রতি উপজেলায় এক প্লাটুন বা ৩৫ জন সেনাসদস্য মোতায়েন করা হচ্ছে। নির্বাচনের আগে ও পরে মিলিয়ে মোট পাঁচ দিন তাঁরা নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করবেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তায় স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে মাঠে থাকবেন তাঁরা। প্রতিটি উপজেলায় সেনাবাহিনীর সঙ্গে থাকছে দুই থেকে তিনটি পিকআপ ভ্যান ও একটি জিপ গাড়ি। সেনাসদস্যদের সঙ্গে তাঁদের একজন অফিসার ও একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন। এ ছাড়া মোবাইল ফোর্স হিসেবে পর্যাপ্ত সংখ্যক র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকছেন।

x