Skip to content

বাঙ্গালী জাতি সত্ত্বা জাগ্রত করতে তরুণদেরকে পাঠাগারমূখী হতে হবে

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থপ্রতিমন্ত্রী ও সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, বাংলাদেশ তথা ভারতীয় উপমহাদেশে প্রতিষ্ঠিত বাঙ্গালী জাতীসত্ত্বা আজ অজানা কারণে স্তিমিত হয়ে পড়েছে। পিছিয়ে পড়া এই জাতি সত্ত্বাকে জাগ্রত করতে আমাদের তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। নিজেদের মধ্যে নিজস্ব স্বকীয়তা জাগ্রত করা বই পড়া ব্যতিরেকে সম্ভব নয়। তাই আমাদের ভবিষ্যৎ তরুণপ্রজন্মকে বই পাওয়ার সহজ মাধ্যম লাইব্রেরীমূখী হতে হবে।

তিনি শনিবার রাত ৯টায় সুনামগঞ্জ পাবলিক লাইব্রেরী (শহীদ জগৎজ্যোতি পাঠাগার) কর্তৃক আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় সংবর্ধিত হিসেবে এসব কথা বলেন।

এম এ মান্নান আরো বলেন, আমাদের বর্তমান বাংলাদেশ আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে অনেক বেশি সম্পদশালী। আর এটা সম্ভব হয়েছে একমাত্র সাধারণ মানুষের কঠোর পরিশ্রমের ফলে। দেশকে পৃথিবীর মানচিত্রে একটি সমৃদ্ধশালী সুখী বাংলাদেশ গড়তে আমাদের সবাইকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। জাতীগতভাবে আমাদেরকে রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করে অগ্রাধকিার ভিত্তিতে কাজ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমরা জানি হাবিল-কাবিলের সময় থেকে মানুষ হত্যা চলে আসছে। কিন্তু গত কয়েক মাস আগে শুধুমাত্র রাজিৈনতক কারণে আমাদের দেশে প্রচুর বৃক্ষকর্তন করা হয়েছে। আমাদের পরিবেশবাদীরা কেন জানি অনেকটা একপেশে কথা বলেন। বিভিন্ন সময়ে সরকারের নানামূখী সমালোচনা করলেও তাদেরকে বৃক্ষকর্তনের বিষয়ে কোনো কথা বলতে দেখা যায় নি।

তিনি বলেন, শিক্ষাসহ উন্নয়ন বঞ্চিত অবহেলিত সুনামগঞ্জের সার্বিক উন্নয়নে আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাবো। এসময় তিনি জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ সেতু, সুরমা সেতুর কাজ যত দ্রুত সম্ভব শেষ করার আশ্বাস প্রদান করেন।

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও পাঠাগারের সভাপতি মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধরীর সভাপতিত্বে ও সংস্কৃতিকর্মী জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দেবজিৎ সিংহ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আব্দুল হাই আল মাহমুদ, জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আপ্তাব উদ্দিন, পাঠাগারের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ শামসুল ইসলাম, এড. স্বপন কুমার দে, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ সৈয়দ মহিবুল ইসলাম, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম, জেলা বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল লেইছ রোকেস, মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান প্রমূখ।

এসময় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিক ও সুশীল সমাজসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে লাইব্রেরীর পক্ষ থেকে প্রতিমন্ত্রীকে ক্রেস্ট উপহার দেওয়া হয়।

এর আগে সুনামগঞ্জ সফরকালে প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান সকালে সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজে তরুণ প্রজন্মকে কর্মদক্ষ করে তুলে বেকারত্ব সমস্যা সমাধানকল্পে ‘ইন্সপায়ার নিউ জেনারেশন’ কর্তৃক আয়োজিত দেশব্যাপী মটিভেশনাল ওয়ার্কশপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।
এ সময় সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মেজর ছয়ফুল কবির চৌধুরী ও উপাধ্যক্ষ সৈয়দ মহিবুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

x