Skip to content

পিচঢালা সড়কের বিকল্প খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

পিচঢালা সড়কের বিকল্প খুঁজতে বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কারণ এ ধরনের রাস্তা দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়। এ ক্ষেত্রে কংক্রিটের ঢালাই করা সড়ক বানানো যায় কি না, তা যাচাই-বাছাই করার নির্দেশ দেন তিনি।

সোমবার সকালে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ বিষয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় তিনি সভাপতিত্ব করেন। সভায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমে অংশ নেওয়া ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের পাওনা পরিশোধ করতেও অর্থমন্ত্রীকে নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, নির্ধারিত আলোচনা ছাড়াও সভায় বিভিন্ন বিষয় উঠে আসে। ঠিকাদারদের পাওনা পরিশোধের প্রসঙ্গটি তোলেন নৌমন্ত্রী শাজাহান খান। তাকে সমর্থন দেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।

সূত্র আরো জানায়, সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সড়ক নির্মাণের জন্য জমির সদ্ব্যবহার, অপ্রয়োজনীয় বাইপাস সড়ক নির্মাণ না করা, জলাবন্ধতা নিরসনে নদী বা পানিপ্রবাহ নিশ্চিত করাসহ প্রয়োজনীয় কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

সভায় প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, বিটুমিন কার্পেটিং করা বা পিচঢালা সড়কগুলো এক বছরেই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এ কারণে বিকল্প পদ্ধতি অর্থাৎ কংক্রিটের রাস্তা নির্মাণ করা যায় কি না, তা পর্যালোচনা করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন তিনি।

প্রসঙ্গক্রমে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা দেখি, একটি রাস্তা তৈরি হলেই তাতে যেকোনো পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল শুরু করে দেয়।’ কোন রাস্তা দিয়ে কী ধরনের পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল করবে, তা নিয়ন্ত্রণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীদের পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

x