Skip to content

স্বার্থ হাসিলের জন্য বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি : বিএনপি

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, "সরকার দেশের মানুষের কথা চিন্তা না করে নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য বিদ্যুতের মূল্য বাড়িয়েছে।"

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল আয়োজিত ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার একের পর এক জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে মানুষের জীবনযাত্রাকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। হঠাৎ বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির কারণে দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির নাগরিকরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

সরকারকে উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, "গত ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে যা হওয়ার হয়েছে, কিন্তু গণতন্ত্রকে আর ধ্বংস করবেন না। আপনাদের এত ভয় কিসের? সকল দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন দিন, নির্বাচনে জনগণ যে দলের প্রতি রায় দেবে তারাই দেশ পরিচালনা করবে।"

দেশের সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে অতি দ্রুত আর একটি জাতীয় নির্বাচন দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

ফখরুল অভিযোগ করেন, "সরকার কুইক রেন্টালের পুঁজি হালাল করতে আবারো বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি না করে, অবিলম্বে আরো কমাতে হবে।"

তিনি বলেন, "দেশে আজ গণতন্ত্র নেই। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আজ ভুলুণ্ঠিত। সরকার গণতন্ত্রের কথা বলে একদলীয় শাসন কায়েম করেছে। ফলে সারাদেশ আজ কারাগারে পরিণত করেছে। এই কারাগার থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। রুখে দাঁড়াতে হবে অত্যাচারীদের বিরদ্ধে।"

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক জাফরুল হাসান।

x