Skip to content

২ বছরের কিস্তিতে ল্যাপটপ পাবে শিক্ষার্থীরা

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘আমার দেশ আমার গ্রাম’র মাধ্যমে ২ বছরের কিস্তিতে ল্যাপটপ কিনতে পারবেন নারী উদ্যোক্তা ও শিক্ষার্থীরা। এজন্য শতকার ১০ টাকা সুদ দিতে হবে ট্রাস্ট ব্যাংককে। বিনিময়ে কোনো ডাউনপেমেন্ট ছাড়াই মিলবে ডেল ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক কনফারেন্স হলে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ড. আতিউর রহমানের উপস্থিতিতে তিনটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি হয়েছে। অনুষ্ঠানে দুজন শিক্ষার্থী ও একজন নারী উদ্যোক্তার হাতে ল্যাপটপ তুলে দিয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এসএমই বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মাসুম পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ট্রাস্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইশতিয়াক আহমেদ চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক দাশগুপ্ত অসীম কুমার, ডেল’র আবাসিক ব্যবস্থাপক সোনিয়া বশির করিব, আমার দেশ আমার গ্রামের প্রতিষ্ঠাতা সাদেকা হাসান সেজুতিসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ল্যাপটপ কিনতে ট্রাস্ট ব্যাংক ৯ থেকে ১০ শতাংশ সুদে নারী উদ্যোক্তাদের ও শিক্ষার্থীদের ঋণ দেয়া হবে। দুই বছরের সহজ কিস্তিতে তারা এ ঋণ পাবেন। ডাউন্টপেমেন্ট হিসেবে ল্যাপটপের দামের ২০ শতাংশ ক্রেতাকে দিতে হবে। বাকি ৮০ শতাংশই গ্রাহকরা পাবেন ঋণ হিসেবে। আর ল্যাপট কেনা বা ঋণ নিতে আমার দেশ আমার গ্রাম ও ডেল এর ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর বলেন, “আমরা ই-কমার্সের প্রসার করতে চাই। নারীর ক্ষমতায়ন চাই। তরুণদের ব্যাংকিং সেবায় নিয়ে আসতে চাই। এসব বিবেচনা করেই বাংলাদেশ ব্যাংক তার পুনঃঅর্থায়ন তহবিল থেকে ব্যাংক রেটে (৫ শতাংশ হারে) এ অর্থ দেবে।”

তিনি জানান, এখন থেকে এসএমই উদ্যোক্তারা ২০ থেকে হাজার টাকাও ঋণ নিতে পারবেন।

ট্রাস্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইশতিয়াক আহমেদ বলেন, “অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন নিয়ে এ ঋণ দেয়া হবে। সাধারণ গ্রাহক পর্যায়ে ঋণে ২০ শতাংশ দেয়ার বিধান। কিন্তু এখানে আমরা ৮০ শতাংশ ঋণ দিতে পারব।”

ডেল এর বাংলাদেশ কান্ট্রি ম্যানেজার সোনিয়া বশির কবির বলেন, “আমরা ঘরে ঘরে ডেল কম্পিউটার নিয়ে যেতে দুই বছরের সহজ কিস্তিতে এ ল্যাপটপ দেওয়া হবে। আর প্রতিটি ল্যাপটপের গ্যারান্টি থাকবে তিন বছর।”

x