Skip to content

দেবযানীর বিরুদ্ধে ফের অভিযোগ গঠন যুক্তরাষ্ট্রের

ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানী খোবরাগাড়ের বিরুদ্ধে ফের অভিযোগ এনেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালত।

এর মাত্র দুইদিন আগে দেবযানীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ খারিজের আদেশ দিয়েছিল মার্কিন জেলা আদালত। তবে ওই সময় দেবযানীর বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ আনার পথও খোলা রেখেছিল আদালত।

দেবযানীর আইনজীবী ডেনিয়েল আরশাক দেবযানীর বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযোগ গঠনের ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেননি।

নিউইয়র্কের ভারতীয় কনস্যুলেটের সাবেক ডেপুটি কনসাল জেনারেল দেবযানীর বিরুদ্ধে ভিসা আবেদনে ভুল তথ্য দেওয়া ও গৃহকর্মীকে কম বেতন দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছিল বলে নিউ ইয়র্কের আইনজীবীরা জানিয়েছেন।

তবে দেবযানী সব সময়ই তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

গত বছরের ১২ ডিসেম্বর দেবযানীকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাকে হাতকড়া পরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

গ্রেফতারের পর তার সঙ্গে অপরাধীর মতো আচরণ করা হয়। বিবস্ত্র অবস্থায় তার দেহে তল্লাশি চালানো হয়। তার ডিএনএ’র নমুনা নেওয়া হয়। পরে তাকে মাদকাসক্তদের সঙ্গে একই সেলে রাখা হয়।

এ ঘটনায় ভারত-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন শুরু হয়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ ভারত দেশটিতে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা শিথিল করে। নয়া দিল্লিতে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের সামনের নিরাপত্তা বেষ্টনি সরিয়ে দেওয়া হয়। মার্কিন কূটনীতিকদের বিশেষায়িত সুবিধাগুলো কমিয়ে দেওয়া হয়। এমনকি ভারত থেকে মার্কিন কূটনীতিককে প্রত্যাহারও করা হয়।

দেবযানীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র ফৌজদারি অভিযোগ আনা সত্ত্বেও চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি পূর্ণ কূটনৈতিক নিরাপত্তায় ভারতে ফেরেন দেবযানী। সূত্র: বিবিসি

x