ভোট শেষে গণনা শুরু

চতুর্থ ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে গণনা শুরু হয়েছে। ৪৩ জেলার ৯১টি উপজেলা ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরমধ্যে সহিংসতা ও গোলযোগের কারণে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

রোববার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোটগ্রহণ চলাকালে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, ভোট কারচুপি, ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এছাড়া মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন প্রধান (৬৫)।

নির্বাচন কমিশন চতুর্থ দফায় ৯৩টি উপজেলার তফসিল ঘোষণা করলেও দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত করা হয়। মোট এক হাজার ১৮৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩৮৯ জন, ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী ৪৮৫ জন এবং মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন ৩১২ জন।

এসব এলাকায় মোট ভোটার এক কোটি ৪৩ লাখ ২৫ হাজার ৬৪৪ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৭১ লাখ ৩৯ হাজার ১০২ জন ও নারী ভোটার ৭১ লাখ ৮৬ হাজার ৫৪২ জন।

ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ছয় হাজার ১০৮টি, ভোট কক্ষ ৩৮ হাজার ৬৪৪টি। প্রতি ভোট কেন্দ্রে একজন করে মোট ছয় হাজার ১০৮ জন প্রিজাইডিং অফিসার ছিলেন। সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার প্রতি ভোট কক্ষের জন্য একজন করে মোট ৩৮ হাজার ৬৪৪ জন এবং পোলিং অফিসারের সংখ্যা ছিল ৭৭ হাজার ২৮৮ জন।

x