Skip to content

‘গণতন্ত্রের লাশ হওয়া বাকি’

‘আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রের গলা টিপতে টিপতে এমন অবস্থায় নিয়ে এসেছে যাকে এখন লাশ হিসেবে ঘোষণা করা বাকি আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

নয়াপল্টনে অবস্থিত দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

রবিবার চতুর্থ দফায় অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনের সার্বিক চিত্র ও বিএনপির আশঙ্কার কথা তুলে ধরে অনিয়মের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাতেই এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগ উপজেলা নির্বাচনে দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা পাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিমের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ‘বর্তমান অবৈধ সরকারের মন্ত্রীর এই বক্তব্যের প্রতিফলন চতুর্থ দফা নির্বাচনে ঘটেছে।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন স্বাধীন, মানুষ বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে ভোট দিচ্ছে- প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্য সঠিক, যথার্থ।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন স্বাধীন। কমিশন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে স্বাধীনভাবেই কাজ করছে। নির্বাচন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গুলি করে মানুষ হত্যা, সরকারি সন্ত্রাসীরা বোমা ফাটিয়ে গুলি করে মহাধুমধামেরে সঙ্গে কেন্দ্র দখল, প্রিজাইডিং অফিসারের তত্ত্বাবধানে জাল ভোট প্রদান, সহিংসতা, প্রকাশ্যে ব্যালটে সিল মারা, বিএনপির এজেন্টদের বের করে দেওয়া, ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ে স্বাধীনভাবে কাজ করছে।’

তিনি বলেন, ‘কমিশনের কাছ থেকে সরকারের লোকেরা মুচলেকা নিয়ে নিয়েছে যাতে তারা ভিন্নমতও প্রকাশ করতে না পারে। তাণ্ডবের পক্ষে কমিশন মোলায়েম সুরে সাফাই গাইছে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে।’

রিজভী বলেন, ‘জনগণ যেখানে ন্যূনতম ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পেয়েছে সেখানেই জাতীয়তাবাদী শক্তির পক্ষে অবস্থান নিচ্ছে। তা দেখে সরকারের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।’

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচটি ইমামের কঠোর সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ‘সারাদেশে নির্বাচন চলাকালীন সময়ে সহিংসতা হলেও এইচটি ইমাম বিবৃতি দিয়ে বলেছেন ভোট শান্তিপূর্ণ হচ্ছে। এ ধরনের বিবেক বর্জিত ও নির্লজ্জ কিছু উপদেষ্টা নিয়োগ দিয়ে রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে দলের যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী আসাদ, সহ-দফতর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি, শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করিম শাহীন, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইসতিয়াক আজিজ উলফাৎ, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিণ সুলতানা, মহানগরের যুগ্ম-আহ্বায়ক তাঁতি দলের সিনিয়র সহসভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

x