Skip to content

সেনাবাহিনীতে যোগদানে সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধকরণ

‘সমরে আমরা, শান্তিতে আমরা, সর্বত্র আমরা দেশের তরে। চির উন্নত মমশিরে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার অতন্দ্র প্রহরী বাংলাদেশ সেনাবাহিনী উদ্দীপ্তময়’ স্লোগানকে ধারণ করে এবং দেশসেবার সুমহান ব্রত নিয়ে সেনাবাহিনীতে যোগদানের আহ্বান জানিয়ে এক উদ্বুদ্ধকরণ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ মিলনায়তনে জালালাবাদ সেনানিবাসের উদ্যোগে সেনাবাহিনীতে অফিসার পদে যোগদানে উদ্বুদ্ধকরণ এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

‘তুমি আমার সেনাবাহিনী, তুমি আমার গৌরব’ এ গানের ভিডিও প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় সেমিনার। সেমিনারে মূল প্রতিপাদ্য উপস্থাপন করেন লেফট্যানেন্ট কর্নেল মো. রাজু আহমদ।

সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন, কলেজের উপাধ্যক্ষ সৈয়দ মহিবুল ইসলামসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ।

বড় পর্দায় মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরে সেনাবাহিনীর কর্মকাণ্ড, সুযোগ-সুবিধা, ভর্তির নিয়ম কানুনসহ নানা বিষয় তুলে ধরে বলা হয়, বিজিবি, আনসার ও ভিডিপি, র‌্যাব ফোর্সেসসহ মেডিকেল, ফায়ার সার্ভিস, বিএনসিসি বিভিন্ন সংস্থার পরিচালনায় নিয়োজিত সেনা বাহিনী। সাফ গেমস, সার্ক সম্মেলন, বিশ্বকাপ ক্রিকেট, পবিত্র হজের সময় হাজিদের সহযোগিতা, এসএসএফ, পিজিআরসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সেনাবাহিনীর অফিসারগণ দায়িত্ব পালন করেন।

সেনাবাহিনীতে রয়েছে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ। আছে নিরাপদ পরিবেশ। সামরিক ও সরঞ্জামাদি ও প্রযুক্তি সম্পর্কে জানা ও ব্যবহারের সুযোগ, বেতন-ভাতা, বাসস্থান, চিকিৎসা, রেশন, মিলিটারি, ইনস্টিটিউশন অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলিজিতে উচ্চ শিক্ষা, দেশে-বিদেশে উচ্চতর প্রশিক্ষণ, জাতিসংঘ শান্তি মিশনে কাজ করার সুযোগ, বৈদেশিক সংস্থায় চাকরি, স্বল্পমূল্যে খাদ্য সামগ্রী, সন্তানদের লেখাপড়া, দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন, সিএসডি, সুবিধা, অবসরের পর সুযোগ-সুবিধাসহ নানা সুযোগ-সুবিধা রয়েছে সেনাবাহিনীর অফিসার লেবেলে।

এইচএসএসসি পাস করার পর প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা হওয়ার সুযোগ রয়েছে সেনাবাহিনীতে। যা সরকারি অন্য পেশায় মাস্টার্সের পর বিসিএস পাস করে অর্জন করতে হয়। সেনাবাহিনীতে অফিসার পদে ৫ ফিট ১ ইঞ্চি উচ্চতা, ৪০ দশমিক ৮২ কেজি ওজন, ২৮ ইঞ্চি স্বাভাবিক ও ৩০ ইঞ্চি প্রসারণ পরিমাপের বুক, অবিবাহিত বাংলাদেশি নারীরা যোগদান করতে পারবেন। যোগদানের আগে সেনাবাহিনীর বিজ্ঞপ্তি মোতাবেক আবেদনপত্র সংগ্রহ করে তা যথাযথভাবে পূরণ করে জমা দিতে হবে। এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ-৪ পয়েন্ট থাকলেই সেনাবাহিনীর অফিসার পদে আবেদন করা যাবে। মৌখিক ও লিখিত বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞান মোট ২০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সবশেষে শারীরিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।

সেমিনারে দেশের দুর্যোগে, দুর্দিনে, সংকটে, সংগ্রামে সেনাবাহিনীর গৌরবগাথা ঐতিহ্য তুলে ধরে শিক্ষার্থীদের যোগদানের আহ্বান জানানো হয়।

সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ মিলনায়তন এ সময় কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় শিক্ষার্থীদের উপচেপড়া ভিড়ে। সেমিনার শেষে সবার চোখেমুখে অন্যরকম দীপ্তি দেখা যাচ্ছিল।

x