Skip to content

সুনামগঞ্জও বিশ্ব রেকর্ড গড়ায় শামিল

জাতীয় সংগীত গেয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়ার গৌরবে শামিল সুনামগঞ্জের সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন।

‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ আয়োজনে খুলনায় বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ, শিক-শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা অংশগ্রহণ করে সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন।

পেরেডগ্রাউন্ডের সঙ্গে মিল রেখে বুধবার মহান স্বাধীনতা দিবসে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় স্টেডিয়ামে ও সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার জাতীয় সংগীত পরিবেশনের আয়োজন করা হয়।

এতে হাজার হাজার জনতা জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনায় অংশ নেন।

দেশব্যাপী লাখো কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার এই অনুষ্ঠানে সংহতি জানিয়ে সুনামগঞ্জে জেলা উদীচি শিল্পী গোষ্ঠী, গণজাগরণ মঞ্চ, শহীদ গিয়াস তালেব জগৎজ্যোতি স্মৃতি সংসদ, নান্দনিক সোসাইটি, ছাত্র ইউনিয়ন, মহিলা পরিষদসহ জেলার সামাজিক, প্রগতিশীল রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ২৬টি সংগঠন শহীদ মিনারে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনায় অংশ নেয়।

এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈকি, সাংস্কৃতিক সংগঠন, কলেজ, স্কুলের শিার্থী শিকেরা অংশ নেন। শিার্থীরা স্বাধীনতা দিবস উপলে মুক্তিযুদ্ধের উপর নাটিকা প্রদর্শন করে।

মঙ্গলবার রাত ১২টার পরেই স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানান জেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগটনের নেতাকর্মীরা। জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, কমিউনিস্ট পার্টি, ছাত্র ইউনিয়ন, উদীচি শিল্পীগোষ্ঠী, প্রশাসন, পৌরসভাসহ বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান শহীদ মিনারে ফুলেল শ্রদ্ধা জানায়।

বুধবার দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল হুদা মুকুটের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়।

বেলা সাড়ে ১১ টায় শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ পরিবারকে সংবর্ধনা দেয় জেলা প্রশাসন।

এদিকে জেলা ১১ টি উপজেলায় একই সঙ্গে জাতীয় সঙ্গীত পারিবেশিত হয়।

x