Skip to content

নতুন অঞ্চলে ‘ভাসমান বস্তু’

নিখোঁজ মালয়েশীয় উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষ সন্ধানে দক্ষিণ ভারত মহাসাগরের নতুন ঘোষিত অঞ্চলে ‘ভাসমান বস্তু’ দেখা গেছে বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র নিরাপত্তা বিষয়ক কর্তৃপক্ষ (এএমএসএ) জানিয়েছে, তবে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য শনিবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে, কেননা শনিবারের আগে নতুন সন্ধান অঞ্চলে কোনো জাহাজ পৌঁছাতে পারবে না।

অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলের বন্দরনগর পার্থের দক্ষিণ-পশ্চিমে দুই হাজার ৫০০ কিলোমিটার দূরে পূর্বের সন্ধান অঞ্চল থেকে নতুন সন্ধান অঞ্চল এক হাজার একশ কিলোমিটার উত্তরে।

নতুন সন্ধান অঞ্চল আগের ধারণা করা অঞ্চলের চেয়ে বড় হলেও এটি অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিম উপকূলীয় বন্দর শহর পার্থের নিকটবর্তী। পার্থ থেকে এক হাজার ৮৫০ কিলোমিটার দূরের নতুন এ অঞ্চল ৩ লাখ ১৯ হাজার বর্গ কিলোমিটার বা পোলান্ডের আয়তনের প্রায় সমান।

এএমএসএ জানিয়েছে, অভিযানে অংশ নেওয়া রয়্যাল নিউজিল্যান্ড এয়ার ফোর্স ওরিয়ন থেকে সাগরে ‘ভাসমান বস্তু’ দেখা গেছে।

রয়্যাল নিউজিল্যান্ড এয়ার ফোর্স ওরিয়নের ক্রুরা বলেছেন, তারা ১১টি অজ্ঞাত বস্তু শনাক্ত করেছেন।

এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে পার্থ থেকে দক্ষিণ-পশ্চিমে ২ হাজার ৫০০ কিলোমিটার দূরে উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষের সন্ধানে জাহাজ ও উড়োজাহাজ অভিযান চালানো হয়। শুক্রবার ১০টি উড়োজাহাজের সন্ধান অভিযানের গতিপথ পরিবর্তন করা হয়।

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ (এএমএসএ) জানিয়েছে, অস্ট্রেলীয় জিওস্পাশিয়াল-ইনটেলিজেন্স ‍অরগানাইজেশন স্যাটেলাইট ঘুরিয়ে নতুন অঞ্চলের দিকে নজর দিচ্ছে।

১০টি উড়োজাহাজ নতুন অঞ্চলে সন্ধান অভিযানে গেলেও অস্ট্রেলিয়া ও চীনা জাহাজগুলো উত্তরের ওই অঞ্চলে যেতে বেশ সময় লাগবে। শনিবার সকালেও সেখানে পৌঁছাতে পারবে না অস্ট্রেলীয় জাহাজ এইচএমএএস সাকসেস।

অস্ট্রেলিয়ার পরিবহন নিরাপত্তা ব্যুরো (এটিএসবি) জানিয়েছে, সন্ধান অভিযানে অঞ্চলে পরিবর্তন আনা হয়েছে দক্ষিণ চীন সাগর ও মালাক্কা প্রণালী মধ্যকার রাডার তথ্য বিশ্লেষণ করে। রাডারের তথ্য দেখা যায, কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিংগামী বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজটি পশ্চিমে বড় ধরনের মোড় নিয়েছে।

৮ মার্চ ১৪ দেশের ২৩৯ নাগরিকবাহী মালয়েশিয়ার সরকারি প্রতিষ্ঠান মালয়েশীয় এয়ারলাইন্সের এমএইচ ৩৭০ ফ্লাইটটি বেইজিংয়ের উদ্দেশে কুয়ালালামপুর ছেড়ে যাওয়ার ঘটনা খানেকের মধ্যে রাডার থেকে হারিয়ে যায়। তিন সপ্তাহ ধরে নানা গুজব, শঙ্কার পর চলতি সপ্তাহে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী জানান, উড়োজাহাজটি দক্ষিণ ভারত মহাসাগরের কোথাও বিধ্বস্ত হয়েছে। আরোহীদের কেউ বেঁচে নেই।

x