Skip to content

এসি প্রত্যাহার না হলে সাহায্য বন্ধ : নাসিম

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বারডেম হাসপাতালের ডাক্তার লাঞ্ছনাকারী এসি’কে (সহকারী কমিশনার-পুলিশ) বুধবারের মধ্যে প্রত্যাহার না করা হলে সকল পুলিশ হাসপাতালের সাহায্য-সহযোগিতা প্রয়োজনে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির গোলটেবিল মিলনায়তনে মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমি ডাক্তারদেরকেও বলেছি, মানবিক কারণেই ধর্মঘট করবেন না। চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যান। মানুষ ভুল করতেই পারে। এটা ডাক্তারদেরও হতে পারে, রোগীর পক্ষদেরও হতে পারে। তাই বলে ধর্মঘট যেমন করা যাবে না তেমনি কারো গায়ে হাত তোলাও যাবে না।

আওয়ামী লীগ এই নেতা বলেন, বাঙালির অনেক গুণের বিপরীতে একটি দোষ রয়েছে। সেটা হলো ইতিহাস ভুলে যাওয়া। তাই মাঝে মধ্যে বাঙালিকে কিছু বিষয় মনে করিয়ে দিতে হয়।

বিএনপিকে উদ্দেশে করে তিনি বলেন, খলনায়কদের প্রচার চালিয়ে লাভ নেই। বাঙালি খলনায়কদের গ্রহণ করে না। কেউ একজন রাস্তায় দাঁড়িয়ে যদি রাষ্ট্রপতি দাবি করে তাহলে তো হবে না। আমি স্বাস্থ্যমন্ত্রী আছি। প্রয়োজনে তাদের জন্য পাবনা মেন্টাল হসপিটালে সিট রাখা হবে।

রাষ্ট্রপতি নিয়ে দেওয়া তারেক রহমানের বক্তৃতার বিষয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপির মতো মৃতপ্রায় দলের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে নানান অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। কিন্তু যারা মরে গেছে তাদের আর জীবিত করা যাবেনা। বিএনপির কোনো পরিবর্তন নেই। ভুল স্বীকার করে না। এদের মতো দল বার বার আমাদের কাছে পরাজিত হবে।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে মন্ত্রী বলেন, এসিতে বসে ভিডিওবার্তা দিলে আন্দোলন হবে না। ব্যর্থ পলায়নপর নেতাদের বাদ দেন, জামায়াতকে ছাড়েন। মাথা ঠাণ্ডা করেন।

বিরোধী দলে থাকতে নিজেদের আন্দোলনের বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করে নাসিম বলেন, আমরা রাজপথে মার খেয়েছি, আন্দোলন করেছি। কিন্তু পুলিশ ও জনসাধারণকে পুড়িয়ে মারিনি।

x