Skip to content

ধর্মপাশা ও জামালগঞ্জে হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়-শিলাবৃষ্টি

সারাদেশের কয়েকদিনে তীব্র তাপদাহের পরে সুনামগঞ্জের কয়েকটি উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ের সঙ্গে সঙ্গে শীলাবৃষ্টিও হয়েছে। এতে গরমে অতিষ্ট হওয়া মানুষের মনে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এলেও শীলাবৃষ্টিতে হাওরাঞ্চলের ফসলের ক্ষতি হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ ও ধর্মপাশা উপজেলার উপর দিয়ে এ কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যায়। এ খানিকক্ষণ শীলাবৃষ্টিও হতে দেখা গেছে।

এছাড়া কালবৈশাখী ঝড়ে জামালগঞ্জ উপজেলার ভীমখালী ইউনিয়নের নোয়াগাঁও বাজারের ১০টি আধাপাকা দোকানঘর ক্ষতিকগ্রস্ত হয়েছে।

ভীমখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান সুনামগঞ্জ মিররকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শিলাবৃষ্টিতে হাওরের ২৫ ভাগ ফসল ক্ষয়গ্রস্ত হয়েছে। জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নেও শীলাবৃষ্টিতে ফসলের ক্ষতি হয়েছে।

অপরদিকে ধর্মপাশা উপজেলা সুখাইর রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফুল মিয়া সুনামগঞ্জ মিররকে জানান, তার ইউনিয়নের ৪টি হাওরের ফসলের ক্ষতি হয়েছে। হাওরগুলো হলো- ধানখুনিয়া, সোনামড়ল, শাশখা ও জয়ধনার।

জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এসএম সফি কামাল কালবৈশাখী ঝড় ও শীলাবৃষ্টিতে ফসলের ক্ষয়ক্ষতির খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন- রাত হওয়ায় এবং সরকারির ছুটি থাকায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানানো যাচ্ছেনা।

জামালগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোখলেছুর রহমান জানান, ফসলের ক্ষয়ক্ষতি দেখতে হাওরে মাঠ কর্মীদের পাঠানো হয়েছে।

x