Skip to content

এইচএসসির ফল হতে পারে ফেব্রুয়ারির শুরুতে

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ফেব্রুয়ারির শুরুতে প্রকাশ হতে পারে। সে লক্ষে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড কাজ করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ফলাফল প্রক্রিয়ার কার্যক্রম চলমান আছে। দ্রুত করতে গেলে ভুল হতে পারে। সেজন্য আমরা তাড়াহুড়ো করতে চাই না। এসএসসির মতো এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের তিনটি বিষয়ের পরীক্ষা হলেও তাদের পত্র কিন্তু ছয়টি। তাই কিছুটা সময় লাগতে পারে।

ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ফল প্রকাশ সম্ভব হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা চেষ্টা করছি। এখনও খাতা জমা দেওয়া হয়নি। খাতা জমা পড়লে দ্রুত ফল হয়ে যাবে। আশা করছি পারব। তবে এই মাসের ২২-২৩ তারিখের দিকে জানাতে পারব কবে নাগাদ ফলাফল প্রকাশ হবে।

জানা গেছে, এবার করোনা সংক্রমণের কারণে শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস না হওয়ায় বিভাগভিত্তিক তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ে ছয়টি পত্রে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ২ ডিসেম্বর এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। ওইদিন শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন পরীক্ষা শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষা শেষ হয়েছে গত ৩০ ডিসেম্বর।

২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১১টি শিক্ষা বোর্ডের ১৩ লাখ ৯৯ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। এবার দেশের সাধারণ ৯টি শিক্ষা বোর্ডে শুধু এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন ১১ লাখ ৩৮ হাজার ১৭ জন। আর মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিম পরীক্ষা দিয়েছেন এক লাখ ১৩ হাজার ১৪৪ জন। এছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি বিএম ও ভোকেশনাল পরীক্ষা দিয়েছেন এক লাখ ৪৮ হাজার ৫২৯ জন।

সুনামগঞ্জমিরর/এসএ

x