Skip to content

নতুন করে যে হুমকি দিলেন পুতিন

রাশিয়া গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে বিশেষ অভিযান শুরু করে। গত পাঁচমাসের যুদ্ধে ইউক্রেনের বেশকিছু শহর ধ্বংসস্তূপে পরিণত হলেও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হুমকি দিয়ে বলেছেন, রাশিয়া তো এখনো কিছু শুরুই করেনি।

শুক্রবার (০৮ জুলাই) তিনি আলোচনার পথ খোলা আছে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন। খবর গেøাবালনিউজ ও আরটি।

তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, অস্ত্রসহ বিভিন্ন ধরনের সহায়তা দিয়ে চলমান সংঘাত দীর্ঘায়িত করা এই ধরনের আলোচনা কঠিন করে তুলবে। আমরা শান্তি আলোচনার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করি না, তবে যারা প্রত্যাখ্যান করবে তাদের জানা উচিত- যত বেশি সময় নেবে, আলোচনা তত কঠিন হয়ে যাবে।

পুতিন আরও বলেন, পশ্চিমা বিশ্ব শেষ ইউক্রেনীয় পর্যন্ত লড়াই করতে ইচ্ছুক বলে যে ঘোষণা দিয়েছে, এটি আসলে ইউক্রেনীয় জনগণের জন্য একটি ট্র্যাজেডি। চলমান পরিস্থিতির জন্য মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটোকে দায়ী করে তিনি বলেন, এ জোটের বাড়াবাড়ির ফলে একটি ন্যায্য আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা তৈরিতে রাশিয়া যে ধারাবাহিক প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছিল তা হুমকির মুখে পড়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, যদি পশ্চিমের লক্ষ্য থাকে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে সংঘাত উস্কে দেওয়া, তাহলে তারা এতে সফল হয়েছে। কিন্তু কৌশলগতভাবে মস্কো যখন ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করেছিল তখনই পশ্চিমারা হেরে গিয়েছিল। কারণ এর মাধ্যমেই আমেরিকার নেতৃত্বাধীন বিশ্ব ব্যবস্থায় ভাঙন ধরেছে।

পুতিন তার ভাষণে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে বলেন, যে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে তা বন্ধ করা যাবে না।

সুনামগঞ্জমিরর/এসএ

x