কথা দিয়েও কথা রাখেনি জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ

গ্যাসলাইন সংস্কার কাজের জন্য বৃহস্পতিবার (৬ মে) সুনামগঞ্জ পৌর শহরে ভোর ৬টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। বুধবার (৫ মে) সারাদিন মাইকিং করে এতথ্য জানায় জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ। তবে বিকেল ৫টা পেরিয়ে গেলেও পৌর শহরের গ্যাসের দেখা মেলেনি। গ্যাস না থাকায় চরম বিপাকে পড়েছেন বাসিন্দারা।

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের বাসিন্দা দেওয়ান গিয়াস চৌধুরী বলেন, ভোর ৬টা থেকে গ্যাস সংযোগ নেই। বাড়িতে গ্যাস না থাকায় বাইরে থেকে পাঁচ টাকার জিনিস ১০ টাকায় কিনে খেতে হয়েছে।

পৌর শহরের বাসিন্দা আল হাবিব বলেন, গ্যাস সংযোগ ৫টার সময় দেয়ার কথা কিন্তু নির্ধারিত সময়ে তারা গ্যাস দেননি। গ্যাস না থাকায় বাসাতে কোনো রকমের ইফতারের আয়োজন হয়নি। সন্ধ্যা ৭টার দিকে গ্যাস সংযোগ দেয়া হয়েছে।

ঊর্মিলা বেগম নামের এক বাসিন্দা বলেন, গ্যাস কর্তৃপক্ষ মেরামতের নামে রমজান মাসে যে ভেলকিবাজি দেখাল তা সারাজীবন মনে থাকবে। এটা তারা দায়িত্বে অবহেলা করেছে বলে আমি মনে করি।

এদিকে সাংবাদিক চৌধুরী আহমেদ মুজতবা রাজি তাঁর ফেসবুক টামিলাইনে লিখেছেন, ঘোষণা ছিল সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত গ্যাস থাকবেনা। ৬টা ৩ বাজলেও আসেনি গ্যাস সরবরাহ। জনজীবনে ভোগান্তি চরমে, ইফতারের আগে এ ভোগান্তি নিরসনে রোজাদাররা রাস্তায় নেমে এসেছেন। ইফতার বিক্রেতারা হাত পা গুটিয়ে বসা। অনেক আগেই তাদের পণ্য শেষ। রোজা মুখে নিয়ে যেন ক্রেতাদের হাহাকার চলছে।

জানতে চাইলে জালালাবাদ গ্যাস কর্মকর্তা মো. ওয়েস আহমদ বলেন, নির্ধারিত সময়ে গ্যাস সংযোগ দিতে না পেরে আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। কিছু কাজ বাকি থাকায় গ্যাস সংযোগ দিতে বিলম্ব হয়েছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য গ্রাহকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

  • লিপসন আহমেদ

x